৮ ফেব্রুয়ারি কি কোন বিশেষ চমক অপেক্ষা করছে?--মোঃ গালিব মেহেদী খাঁন এর ব্লগ--আপন ভূবন ব্লগ - আপন প্রতিভার সন্ধানে 



প্রথম পাতা » মোঃ গালিব মেহেদী খাঁন এর ব্লগ » ৮ ফেব্রুয়ারি কি কোন বিশেষ চমক অপেক্ষা করছে?

৮ ফেব্রুয়ারি কি কোন বিশেষ চমক অপেক্ষা করছে?

লিখেছেন : মোঃ গালিব মেহেদী খাঁন       ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ রাত ১১:২৮


০টি মন্তব্য   ৭৩ বার পড়া হয়েছে



জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়া জেলে যাচ্ছেন এটা এ দেশের সবগুলো রাজনৈতিক দল এমনকি খোদ বেগম জিয়াও ধরেই নিয়েছেন বলে মনে হচ্ছে। যার পেছনে রয়েছে যথেষ্ট কারণও যেমন এত কথা যে এতিমখানা নিয়ে তার তো কোন অস্তিত্বই নেই এমনকি কখনো ছিলও না! অথচ, রাষ্ট্রীয় এতিম তহবিল থেকে রাষ্ট্রের অর্থ সেই অদৃশ্য এতিমখানায় বেআইনিভাবে দেয়া হয়েছিল। অধ্যাপক মোহাম্মদ এ. আরাফাত দেয়া হিসেব অনুযায়ী, "প্রধানমন্ত্রীর এতিম তহবিল থেকে যে টাকা বেআইনি ভাবে আত্মসাৎ করা হয়েছে তার পরিমাণ ১.২ মিলিয়ন ডলার। মনে রাখবেন, এই টাকা এসেছিল ১৯৯১ সালে, যা দিয়ে তখন গুলশানে যে পরিমাণ জমি কেনা যেত তার আজকের (২০১৮) বাজার মূল্য ২৫০ কোটি টাকা।"(সূত্র বাংলাদেশ প্রতিদিন)
এ ছারাও রয়েছে আওয়ামীলীগ সহ সমমনাদের বেগম জিয়াকে দুর্নীতিবাজ প্রমাণের চেষ্টা আর সে কারণেই বিএনপির বিরোধী পক্ষ ইতিমধ্যেই ঘোষণা দিয়ে ফেলেছেন যে বেগম জিয়া জেলে যাচ্ছেন। এরশাদ সাহেব কত বছর জেল খাটতে হবে সেটাও বলে ফেললেন!
প্রশ্ন হল রায় তো দেবে আদালত তারা কি করে নিশ্চিত হলেন?

আওয়ামীলীগের কিন্তু কেবলমাত্র বেগম জিয়াকে দুর্নীতিবাজ প্রমাণেরই দায় নয় একইসাথে দায় রয়েছে মহামান্য আদালতকেও নিরপেক্ষ প্রমাণ করা। এছাড়াও রাজনৈতিক লাভ-ক্ষতির হিসেব তো আছেই। কাজেই হিসেব নিকেশ অনেক আছে। আদালতের রায় প্রদানের ক্ষেত্রেও রয়েছে অনেকগুলি বিকল্প।
এই রায়টি যে এ দেশের রাজনীতিতে একটি বিশেষ ভূমিকা রাখবে সেটা নিশ্চিত। বেগম জিয়ার জেল হলে হবে এক রকম, অর্থদণ্ড হলে হবে আরেক রকম। আবার বেকসুর খালাস হলে হবে এক রকম।

অনেক রাজনৈতিক বিশ্লেষক মনে করছেন ৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের রাজনীতির একটি টার্নিং পয়েন্ট হবে। তারা বেগম জিয়ার জেলকে নিশ্চিত বলেই ধরে নিয়েছেন সে মত কথা বলছেন। রাজনৈতিক উত্তাপ ছড়াচ্ছেন। অপ্রয়োজনীয় হিসেব কষতে শুরু করে দিয়েছে অনেক সুযোগ সন্ধানীও। যার আভাস মিলেছে নির্বাহী কমিটির সভায় দেয়া খালেদা জিয়ার বক্তব্যেও।

যদি সব অনুমান মিথ্যে করে দিয়ে ৮ ফেব্রুয়ারি আদালত থেকে চমকপ্রদ কোন রায় আসে তখন তারা কি বলবেন? সম্ভবত তেমনি কিছু একটা অপেক্ষা করছে এ দেশ বাসির জন্যে। আমি মনে করি ৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের রাজনীতিবিদদের জন্য একটা চমক অপেক্ষা করছে যা সেই দিনটিকে টার্নিং পয়েন্ট হওয়া থেকে বিরত রাখবে। যে চমকটি ৮ ফেব্রুয়ারিকে বিশেষ কোন দিন না করে একটি গতানুগতিক তারিখ করেই রাখবে। কে জানে তাতে সবথেকে আশাহত হয়ত বিএনপিই হবে। আসুন আমরা সেই চমকের অপেক্ষাতে থাকি।




মোঃ গালিব মেহেদী খাঁন অতি সাধারনের একজন। সাধারন মানুষের কথা বলি।
ব্লগ লিখছেন ৪ বছর ৮ মাস ২৬ দিন, মোট পোষ্ট ২৫৯টি, মন্তব্য করেছেন ৮০টি,          



এই ধরনের আরো কিছু পোস্ট.


জাতীয় পার্টিকে সুস্থ-স্বাভাবিক-স্বাধীন রাজনীতি চর্চার সুযোগ দিন

যে সমীকরণটা আমরা কখনোই মেলাতে পারি না

৫৮ দলীয় জোট; প্রযোজনা ও পরিবেশনায় আওয়ামীলীগ পরিচালনায় জাতীয় পার্টি।

কোন ডেমোক্রেসি চান

বিএনপি’র আন্দোলন জনসমর্থনপুষ্ট
 

মন্তব্য সমূহঃ

মন্তব্য করতে লগিন করুন।

ইমেইল: পাসওয়ার্ড: রেজিস্ট্রেশন করুন